রবিবার, ২২ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

অবশেষে শাবি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন প্রত্যাহার

  • Fion
  • ২০২২-০২-১২ ২১:৫০:৫৬
image
উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে টানা ২৭ দিন আন্দোলনের পর কর্মসূচি প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। শনিবার সন্ধ্যার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বরে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘোষণা দেন তারা। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও ভিসি ফরিদ উদ্দিন আহমেদের সঙ্গে বৈঠকের পরদিন আন্দোলন প্রত্যাহারের ঘোষণা এলো। শাবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করতে শুক্রবার সকালে সিলেটে যান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। সিলেট সার্কিট হাউসে বেলা তিনটা থেকে সন্ধ্যা সোয়া ছয়টা পর্যন্ত শিক্ষামন্ত্রী আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ১১ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকে অংশ নেন। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকের পর শিক্ষামন্ত্রী সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটের দিকে শাবি ক্যাম্পাসে যান। সেখানে বিশ্ববিদ্যায়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকদের নিয়ে উপাচার্যের কার্যালয়ে যান। এরপর সেখানে আসেন উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। শিক্ষামন্ত্রী উপাচার্য ও শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে ৭টা ৩৫ মিনিটে ক্যাম্পাস ত্যাগ করেন। ১৩ জানুয়ারি শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অসদাচরণসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে তার পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন ছাত্রীরা। ১৬ জানুয়ারি দাবি আদায়ের লক্ষ্যে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করা অবস্থায় পুলিশ শিক্ষার্থীদের লাঠিপেটা করে এবং তাদের লক্ষ্য করে শটগানের গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেড ছোড়ে। পরে এই আন্দোলন উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে রূপ নেয়। প্রথম ছয় দিনে দাবি পূরণ না হওয়ায় ১৯ জানুয়ারি বেলা ৩টা থেকে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে আমরণ অনশনে বসেন ২৪ শিক্ষার্থী। ২৬ জানুয়ারি সকালে অনশনস্থলে এসে লেখক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক মুহম্মদ জাফর ইকবাল শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙান। তবে শিক্ষার্থীরা অনশন ভাঙলেও উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছিলেন।

এ জাতীয় আরো খবর