শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ৯ মাঘ ১৪২৮

বাঙালির মুক্তির মহানায়কের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন

  • স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
  • ২০২২-০১-১১ ০১:০৬:০০
image

বাঙালির মুক্তির মহানায়কের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে ধানমন্ডি ৩২ নাম্বারে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি। আজ ১০ জানুয়ারি সোমবার দুপুর ৩ ঘটিকায় এ শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। প্যানডেমিক এ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি বজায় রেখে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সদ্যসচিব সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ এ শ্রদ্ধা নিবেদনে অংশগ্রহণ করেন। 

বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সদস্যসচিব এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) প্রফেসর শাহেদুল খবির চৌধুরীর নেতৃত্বে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে নেতৃবৃন্দ সবাই কিছুক্ষণ নিরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। উল্লেখ্য যে, এবার ছিল বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের ৫০ তম বার্ষিকী। অর্থাৎ দিবসটি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের সুবর্ণজয়ন্তী দিবস হিসেবে এবছরটিকে আরও গৌরবোজ্জ্বল করেছে। 

বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা ৮ ই জানুয়ারি পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে লন্ডন ঘুরে ইন্ডিয়া হয়ে স্বাধীন বাংলাদেশে পা রাখেন ১০ ই জানুয়ারি। ১৯৭২ সালের এদিনটি বাঙালির কাছে অভূতপূর্ব এক আনন্দঘন দিন ছিল। যুদ্ধবিধ্বস্ত সদ্য স্বাধীন দেশে স্বাধীনতার মহানায়ক আসবেন- সে এক অভূতপূর্ব দৃশ্য! আবালবৃদ্ধবনিতা বঙ্গবন্ধুকে এক নজর দেখার জন্য ছুটে আসে দূর দূরান্ত থেকে। লাখো লোকের সমাবেশে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসটি ছিল বীরোচিত এক উপাখ্যান। 

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তানি হানাদাররা বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে তার ধানমন্ডির বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। তাকে পাকিস্তানের কারাগারে বন্দি করা হয়। বাঙালি যখন স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করে বঙ্গবন্ধু তখন পাকিস্তানের কারাগারে প্রহসনের বিচারে ফাঁসির আসামি হিসেবে মৃত্যুর প্রহর গুণছিলেন। 

একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর বাঙালিদের চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হওয়ার পর বিশ্বনেতারা বঙ্গবন্ধুর মুক্তির দাবিতে সোচ্চার হয়ে ওঠেন। আন্তর্জাতিক চাপে পরাজিত পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী শেষ পর্যন্ত বন্দিদশা থেকে বঙ্গবন্ধুকে সসম্মানে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়। ২৯০ দিন পাকিস্তানি কারাগারে প্রতি মুহূর্তে মৃত্যুর প্রহর গণনা শেষে লন্ডন-দিল্লী হয়ে তিনি ঢাকায় পৌঁছেন ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি। দিনটিকে স্মরণ করে প্রতিবছর বাঙালি জাতি নানা আয়োজনের মাধ্যমে কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করে থাকে।

 


এ জাতীয় আরো খবর