বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮

গত ২৪ ঘন্টায় ১৪৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত: ডেঙ্গু নির্মূলে চাই জনসচেতনতা

  • স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
  • ২০২১-০৭-২৮ ১৩:৫৭:২৪
image

ঢাকা শহর সহ দেশব্যাপী আবার ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। করোনার এই ভয়াবহতার মধ্যে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব জনগণকে উদ্বেগের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণের জন্য চাই সচেতনতা। গত ২৭ দিনে প্রায় ১৫৫৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে যা নাগরিক সমাজকে ভাবিয়ে তুলেছে। ঢাকা উত্তর এবং দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের তরফ থেকে ডেঙ্গু মশা নিয়ন্ত্রণে ওষুধ ছিটানোর পাশাপাশি জনসচেতনতার জন্য ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে যে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে তার উদ্দেশ্য জনগণকে সচেতন করা, জরিমানা নয়। যারা অসচেতন তাদের জরিমানা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ।   

গতকাল দুপুরে করপোরেশনের মশককর্মী মো. ইকবাল মশার ওষুধ ছিটানোর কাজ করছিলেন রূপনগর আবাসিক এলাকার ১৮ নম্বর সড়কে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সড়কটির এক অংশে কাজ শেষে অপর অংশে যাওয়ার আগে মনির হোসেন নামের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীর কাছে তিনি জানতে চান, ওই দিকে মশার ওষুধ ছিটানো হয়েছে কি না। ঢাকা উত্তর সিটির ৭ নম্বর ওয়ার্ডের পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের সরদার মনির তখন একটি দোকানের সামনে রিকশায় বসে চা খাচ্ছিলেন। সঙ্গে ছিল ১০-১২ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মী। চা খেতে খেতে মনির বলেন, ওই দিকে কাম শেষ, এহন একটু জিরান, একটা চা খান। তাতে কাজ বন্ধ করেন ইকবাল।

স্থানীয় লোকজন জানান, ১৮ নম্বর সড়কের ওই অংশে ওষুধ ছিটানো হয়নি। একপর্যায়ে ডিএনসিসির অঞ্চল-২ এর সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মাহমুদা আলী এসে মশককর্মীদের ওই অংশে ওষুধ ছিটানোর নির্দেশ দেন। নির্দেশনা পেয়ে মশককর্মী মো. নুর আলম ও ইকবাল সড়কের ওই অংশে যান। সেখানে ১৩ নম্বর প্লটের একটি নির্মাণাধীন ভবনের নিচতলায় ড্রামে জমে থাকা পানিতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভবনের মালিক সেলিম দেওয়ানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) গত ২৪ ঘণ্টায় (গত সোমবার সকাল ৮টা থেকে গতকাল ৮টা পর্যন্ত) সর্বোচ্চ ১৪৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। এখানে জুলাই মাসের ২৭ দিনেই ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫৭৩।

এ বছর ১ জানুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত ১ হাজার ৯৪৫ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল রূপনগর আবাসিক এলাকায় চিরুনি অভিযান চালায় ডিএনসিসি। এ অভিযানে অংশ নেওয়া মশককর্মী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের বারবার এক জায়গায় জড়ো হতে ও কাজ থামিয়ে দিতে দেখা গেছে। একই সড়কে বা একই বাসায় একসঙ্গে দুজন মশককর্মী ওষুধ ছিটাতে ভেতরে প্রবেশ করেন। অথচ মশক ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের পৃথক ১০টি দলে ভাগ করা হয়। প্রতিটি দলের সদস্যদের ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানোর নির্দেশনা ছিল। একটি দলে একজন মশককর্মী ও পাঁচজন পরিচ্ছন্নতাকর্মী দেওয়া হয়।

গতকাল সকালে ডিএনসিসির ১০ দিনব্যাপী এই চিরুনি অভিযানের উদ্বোধন করেন সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা। রূপনগর আবাসিক এলাকার ১৬ নম্বর সড়কের পাশে রূপনগর বিপণিবিতানের নির্মাণাধীন মার্কেটের নিচতলায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়। পরে মার্কেট কমিটিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এই মার্কেটের অংশীদার মালিক স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর তোফাজ্জল হোসেন। এডিস মশার লার্ভা থাকায় এ এলাকার ১৭ নম্বর সড়কের ৪ নম্বর বাড়ির মালিক শাহ আলম মোল্লাকেও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এ ছাড়া ডিএনসিসিতে গতকাল ১০টি অঞ্চলের বিভিন্ন ওয়ার্ডে চিরুনি অভিযানে আদালতের মাধ্যমে ১৫টি মামলায় ৪ লাখ ৪১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানের সময় মাইকিং করে তিন দিনে এক দিন, জমা পানি ফেলে দিন এই সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হয়। গতকাল পর্যন্ত ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে রোগী ভর্তি আছে ৫০০ জন।

ঢাকা দক্ষিণে ২৩টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে অভিযান চালিয়ে ২৩টি প্রতিষ্ঠানকে ৩ লাখ ৬ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ জরিমানা করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। সংস্থাটির জনসংযোগ শাখা থেকে সন্ধ্যায় এ তথ্য জানানো হয়।


এ জাতীয় আরো খবর