সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৭ আষাঢ় ১৪২৮

বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে সহকারী থেকে সহযোগী অধ্যাপক পর্যায়ের পদোন্নতির সভা কাল

  • শিক্ষা ক্যাডার প্রতিনিধি
  • ২০২১-০৫-১৭ ২০:৫৪:১১
image

আগামীকাল ১৮ মে ২০২১ মঙ্গলবার পুনরায় ডিপিসির সভা বসতে যাচ্ছে বলে অধিদপ্তর ও মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। উল্লেখ্য, ঈদের আগে ৯ মে ডিপিসির প্রথম সভা বসেছিল। উক্ত সভায় শিক্ষা ক্যাডারের সহকারী থেকে সহযোগী অধ্যাপক পদে পদোন্নতির প্রাথমিক এবং আইনগত বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হয়। আগামীকালের ডিপিসি ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সকাল ১১টায় বসবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মাহবুব হোসেন সভায় সভাপতিত্ব করবেন। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক উক্ত কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (কলেজ) এবং জনপ্রশাসন ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিবদ্বয় ও উপস্থিত থাকবেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

আগামীকালের ডিপিসিতে পদোন্নতি নিয়ে কোনো জটিলতা কিংবা কমিটির কোনো কোয়ারি (quiere) আছে কিনা জানতে চাইলে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের কলেজ শাখার উপপরিচালক প্রফেসর শাহ মো: আমীর আলী বলেন, এ ধরনের কোনো সমস্য নেই। পদোন্নতির সভায় উপস্থাপনের জন্য সমস্ত তথ্য প্রস্তুত আছে। মিটিংয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহের জন্য কলেজ শাখা এবং এসিআর শাখার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। তবে ৩,৪০০ কর্মকর্তার একটি বড় পদোন্নতি বিধায় পদোন্নতির প্রক্রিয়াটি একদিনেই শেষ হয়ে যাবে না। আরও ১ দিন লাগতে পারে।

এবারের ডিপিসিতে সর্বমোট ৩,৩৯৮ জন কর্মকর্তার পদোন্নতির প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। এর মধ্যে ৩,৩০৩ জন বিসিএসকৃত এবং ৯৫ জন আত্তীকৃত। আগামীকালের ডিপিসি'র দিকে শিক্ষা ক্যাডারের প্রায় সাড়ে ১৬ হাজার সদস্য তাকিয়ে থাকবেন। কারণ শিক্ষা ক্যাডারে দীর্ঘদিন পদোন্নতি হয় না। ২০১৮ সালে সর্বশেষ তিনটি টায়ারেই পদোন্নতি হয়। ২০১৯ সালে শুধু সহযোগী অধ্যাপক থেকে অধ্যাপক পদে ৬০৯ জনের পদোন্নতি হয়। ২০২০ সাল পুরোটাই পদোন্নতিবিহীন থাকে। ২০২১ সালে এসে চলতি মাসের ৯ তারিখ ঈদের আগে একবার ডিপিসি'র সভা বসে। সেটির ধারাবাহিকতায় আগামীকাল ১৮ মে পুনরায় ডিপিসি'র সভা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। উল্লেখ্য, এবার সিনিয়র ব্যাচ থেকে শুরু করে ২৬ ব্যাচ পর্যন্ত প্রায় ৩,৪০০ কর্মকর্তা পদোন্নতি প্রত্যাশী। 

পদোন্নতির খবরে ঈদের পূর্ব থেকেই শিক্ষা ক্যাডারের সদস্যদের মধ্যে আনন্দের জোয়ার বইছিল। কিন্তু ৯ তারিখে পদোন্নতি সংক্রান্ত কোনো আপডেট না পেয়ে অনেকেই হতাশ হন। ফেসবুকে কেউ কেউ উপহাস করে স্ট্যাটাস দিয়েছেন, এবারের ঈদে হলো না, আগামী ঈদে নিশ্চয়ই পদোন্নতি হবে। কিন্তু সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ঈদের পর খুব দ্রুতই পদোন্নতির সভা চালু করায় পদোন্নতি প্রত্যাশীরা ক্যাডার নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানান। সেই সাথে শিক্ষামন্ত্রী মহোদয়কেও কৃতজ্ঞতা জানান। আগামীকালের ডিপিসি'র খবর শুনেও অনেকের মধ্যে আশার আলো জেগেছে। শিক্ষা ক্যাডারের হাজারো সমস্যা। একটা একটা করে সমাধান করতে হবে। শিক্ষা ক্যাডারের সব টায়ারে পদোন্নতি প্রক্রিয়াটি নিয়মিত চালু থাকবে- এ প্রত্যাশা সাড়ে ষোলো হাজার ক্যাডার কর্মকর্তার।  


এ জাতীয় আরো খবর