সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৭ আষাঢ় ১৪২৮

বহুল কাঙ্ক্ষিত ডিপিসি'র সভা শুরু, চলবে কয়েকদিন

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২০২১-০৫-০৯ ২১:৫৪:১৯
image

বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের সহকারী অধ্যাপক থেকে সহযোগী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি সংক্রান্ত ডিপিসি'র প্রথম সভা সমাপ্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। ৯ মে সকাল ১১টা থেকে শুরু হয়ে বিকাল ৩টা পর্যন্ত টানা সভা চলে। সভায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন সভাপতিত্ব করেন। কমিটির সদস্যসচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ ডিপিসি কমিটির ৫ সদস্যের সবাই উপস্থিত ছিলেন।

মাউশি অধিদপ্তরের কলেজ শাখা, এসিআর শাখার কর্মকর্তাবৃন্দ প্রয়োজনীয় ফাইল পত্র নিয়ে সহযোগিতার জন্য মন্ত্রণালয়ে উপস্থিত ছিলেন। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, ডিপিসির প্রথম সভায় সহকারী অধ্যাপক থেকে সহযোগী অধ্যাপক পদে পদোন্নতির আইনগত দিকগুলো খতিয়ে দেখা হয়। সভার শুরুতে কলেজ ও প্রশাসন শাখার পক্ষ থেকে সহকারী থেকে সহযোগী অধ্যাপক পর্যায়ের পদোন্নতির সারসংক্ষেপ তুলে ধরা হয়।

মন্ত্রণালয় ও মাউশি অধিদপ্তর সুত্রে জানা গেছে, এই সভা কয়েকটি তারিখে সম্পন্ন হবে। বিশালসংখ্যক পদোন্নতি প্রত্যাশী, বিভিন্ন বিষয় ভিত্তিক জটিলতা, ব্যাচভিত্তিক জটিলতা এই বিষয়গুলো বুঝেশুনেই পদোন্নতির কাজে হাত বাড়াতে হবে। আগামী ১৪ মে ঈদুল ফিতর। এর আগে মাত্র দুইটি কর্মদিবস আছে। ঈদের আগে ডিপিসির সভা বসার আর সম্ভাবনা নেই। ঈদের পর যথাশীঘ্র সম্ভব আবার ডিপিসি'র সভা বসবে বলে মাউশি অধিদপ্তরের কলেজ শাখা সূত্রে জানা গেছে।

সাড়ে যোলো হাজার ক্যাডার সদস্য তাকিয়ে আছে এই পদোন্নতির দিকে। কেননা, শিক্ষা ক্যাডারের পদোন্নতি অন্যান্য ক্যাডারের মতো নিয়মিত হচ্ছে না। সংখ্যায় কম হলেও পদোন্নতির ধারাটি অব্যাহত থাকলে কোনো সমস্যা হওয়ার কথা ছিল না। বছরে দুইটি পদোন্নতির মিটিং হলে এই সমস্যা কাটিয়ে ওঠা যেতো বলে শিক্ষা ক্যাডার নেতৃবৃন্দের অভিমত। এখন ২০২১ সালের মে মাস। ২০১৯ সাল থেকে বছরে দুটি করে পদোন্নতি হলে ৫টি পদোন্নতি হতো। কিন্তু ২০১৮ সালের পর ২০১৯ সাল সম্পূর্ণ পদোন্নতিবিহীন যায়। ২০২০ সালে মাত্র একটি টায়ারে (সহযোগী থেকে অধ্যাপক) পদে পদোন্নতি হলেও কোভিড পরিস্থিতিসহ সবকিছু মিলিয়ে শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তারা প্রমোশন সংক্রান্ত আশার বাণী দীর্ঘদিন শুনছিলেন না।

ফেসবুকে গত ৪ মে থেকে পদোন্নতি সংক্রান্ত ডিপিসি'র খবরে শিক্ষা ক্যাডার সদস্যরা আবার নড়েচড়ে বসেছিলেন। ৯ তারিখের ডিপিসি'র মিটিংয়ে সবার পদোন্নতি হয়ে যাবে এমন আশায় দিন গুণছিলেন। ফেসবুকে কেউ কেউ আগাম অভিনন্দন জানিয়ে পোস্টও করে রাখছিলেন। তবে আশার কথা এই যে, ডিপিসির সভা শুরু হয়েছে এবং এটা চলমান থাকবে। নতুন কোন তথ্য থাকলে শিক্ষারপত্রিকার মাধ্যমে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের সময়ে সময়ে তা জানানো হবে।


এ জাতীয় আরো খবর